চলচ্চিত্র: ছুটির ঘন্টা
পরিচালক: আজিজুর রহমান
কলাকুশলী: রাজ্জাক, শাবানা, সুজাতা, শওকত আকবর, খান আতাউর রহমান, এ টি এম শামসুজ্জামান, সুমন ,জুয়েল আইচ
দেশ: বাংলাদেশ
সাল: ১৯৮০
গল্প সংক্ষেপ
বিধবা মায়ের (নায়িকা সুজাতা) আদরের ছেলে খোকন (মাস্টার সুমন)। খোকনকে নিয়েই সুজাতার সংসার। নীলগিরি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সেরা ছাত্র খোকন। পড়ালেখা, গান বাজনা, খেলাধুলা সবকিছুতেই খোকন স্কুলের সেরা ছাত্র। এছাড়া সেই স্কুলের দপ্তরী আববাস মিয়া (রাজ্জাক), সুইপার আঙুরী (শাবানা) এবং আচার বিক্রেতা সুরত আলী (রবিউল) সবারই প্রিয় ছাত্র সে। স্কুলের দপ্তরী আববাস আলী খোকনকে খুবই স্নেহ করে। সময়ের পালাক্রমে স্কুলে কোরবানীর ঈদের ছুটি ঘোষনা হবে। ঈদে নান বাড়ি যাবে খোকন আর সেজন্য খোকনের নানা শওকত আকবরের বিভিন্ন ধরনের পরিকল্পনা। স্কুলের ছুটি ১১ দিনের জন্য ঘোষনা হয়। স্কুল ছুটি হয়ে যায়। খোকন সহ সব ছাত্র-ছাত্রী স্কুল ত্যাগ করে। মূহুর্ত্বের মধ্যে স্কুল খালি হয়ে যায়।
কিন্তু হঠাৎ খোকনের বাথরুমে যাবার প্রয়োজন হয়। খোকন বন্ধুদের ত্যাগ করে স্কুলের বাথরুমে যায়। এদিকে স্কুলের দপ্তরী আববাস মিয়া স্কুলের দরজা জানালা বন্দ করতে থাকে। স্বাভাবিক ভাবেই খোকন স্কুলের বাথরুমে আটকা পড়ে যায়। খোকন বের হওয়ার চেষ্টা করে, চিৎকার করে কিন্তু কেউ শোনে না খোকনের চিৎকার। কিন্তু খোকন শুনতে পায় তার হারানোর সংবাদ। মাইকে প্রচার হতে থাকে। বাথরুমে কাগজ, পানি খেয়ে দিনরাত কেটে যায় খোকনের। কিন্তু খোকনের মা পাগলপ্রায় কোথায় আমার খোকন, কোথায় আমার খোকন ? কিন্তু খোকন খোকনের মায়ের চিৎকার শুনলেও খোকনের চিৎকার কেউ শোনে না। খোকনের শরীর আস্তে আস্তে নিস্তেজ হতে থাকে। ছবিটি এগিয়ে যায় পরিনতির দিকে……। করুন সুরে বাজতে থাকে সেই গান – একদিন ছুটি হবে, অনেক দূরে যাবো, নীল আকাশে, সবুজ ঘাসে খুশিতে হারাবো। স্কুল ছুটি হলেও খোকনের আর নানা বাড়ি যাওয়া হয় না কারন খোকনের স্বপ্নগুলো চার দেয়ালে বন্দি হয়ে অন্য জগতে ফিরে যেতে চায়। যে জগত থেকে আর ফিরে আসা যায় না।
মূল কলাকুশলী
পরিচালক আজিজুর রহমান
প্রযোজক বমলা সাহা
রচয়িতা আজিজুর রহমান
সুরকার সত্য সাহা
চিত্রগ্রাহক সাধন রায়
সম্পাদক নুরুন নবী
পরিবেশক স্বরলিপি বানীচিত্র
অভিনয়শিল্পী
রাজ্জাক – আব্বাস মিয়া (দপ্তরি)
শাবানা – আঙ্গুরী (ঝাড়ুদার)
সুজাতা – মিসেস খান (মা)
শওকত আকবর – (নানা)
খান আতাউর রহমান – (পুলিশ)
এ টি এম শামসুজ্জামান – (পন্ডিত)
সুমন – আসাদুজ্জামান খোকন
জুয়েল আইচ – নিজ (জাদুকর)
রবিউল –
শর্ব্বরী –
ছুটির ঘন্টা ছবির সংগীত পরিচালনা করেন বিখ্যাত সংগীত পরিচালক সত্য সাহা।
মুক্তি ১৯৮০